বিদেশে উচ্চশিক্ষা গ্রহণের স্বপ্ন থাকে অধিকাংশ শিক্ষার্থীর। তুমি যদি  স্কুল বা কলেজ  জীবনে নিজেকে কেবল ক্লাসরুমের মাঝেই  সীমাবদ্ধ রাখো তবে তুমি তোমার স্বপ্ন পূরণের পথ নিজেই কঠিন করে তুলবে। আন্ডারগ্র্যাজুয়েট লেভেলে উচ্চশিক্ষার এই স্বপ্ন পূরণে তোমার এসএটি (SAT) স্কোরের পাশাপাশি এক্সট্রা কারিকুলাম অ্যাক্টিভিটি তোমার স্বপ্ন পূরণে পাথেও হতে পারে।

 এক্সট্রা কারিকুলার অ্যাক্টিভিটি কি ? 

তোমার যে কোন কাজ যা তোমার বিশেষ কোন গুণের প্রকাশ ঘটায় এবং সরাসরি পড়াশোনার সাথে সম্পর্কিত  নয়, তাই এক্সট্রা কারিকুলামের অ্যাক্টিভিটি। হয়তো তুমি তোমার কলেজ ফুটবল টিমের ক্যাপ্টেন বা  তুখোর বিতার্কিক, তোমার এই এক্সট্রা গুন বা দক্ষতাই তোমাকে অন্য সব স্টুডেন্ট থেকে অনন্য করে তুলবে।

বিদেশে উচ্চশিক্ষা এক্সট্রা কারিকুলাম অ্যাক্টিভিটি কেন গুরুত্বপূর্ণ? 

এক্সট্রা কারিকুলার অ্যাক্টিভিটি একদিকে তোমার মেধাকে শানিত করবে, অন্যদিকে তোমাদের অর্জিত জ্ঞানকে প্রয়োগ করার সুযোগ দিবে। একজন স্টুডেন্টের এক্সট্রা কারিকুলার অ্যাক্টিভিটি থেকে তার নানা দক্ষতা সম্পর্কে জানা যায়। প্যাকটিকেল ফিল্ডের একজন স্টুডেন্ট কতটা দক্ষ তাও প্রমাণ হয় এক্সট্রা কারিকুলার অ্যাক্টিভিটি থেকে। তাই,অ্যাকাডেমি রেজাল্টের পাশাপাশি এক্সট্রা কারিকুলার অ্যাক্টিভিটি অধিক গুরুত্ব দেয়া হয়।

কি কি এক্সট্রা কারিকুলাম অ্যাক্টিভিটির অন্তর্ভুক্ত? 

তোমার পড়াশোনার সাথে সরাসরি সম্পর্কিত নয় কিন্তু তোমার দক্ষতার প্রমাণ হিসবে কাজ করবে এমন যে কোন কিছুই এক্সট্রা কারিকুলাম অ্যাক্টিভিটির অন্তর্ভুক্ত হতে পারে। যেমন:

০১।  ডিবেটে অংশ নেওয়া

০২। ম্যাথ/  ফিজিক্স অলিম্পিয়াডে

০৩। স্বেচ্ছাসেবকের কাজ

০৪। নাচে পারদর্শী হওয়া

০৫। গানে পারদর্শী হওয়া

০৬। ছবি তোলায় পারদর্শী হওয়া

০৭। বাদ্যযন্ত্র বাজাতে পারা ইত্যাদি

উপরের তালিকার বাইরেও অনেক এক্সট্রা কারিকুলাম অ্যাক্টিভিটি রয়েছে। ভালো রান্না করতে পারাও এক্সট্রা কারিকুলাম অ্যাক্টিভিটি হতে পারে।

Brown University একজন প্রতিনিধি বলেছিলেন,

তুমি যদি তোমার পারিবারিক কোন দায়িত্ব পালন কর তবে তাও তোমার  এক্সট্রা কারিকুলামে অন্তর্ভুক্ত হতে হবে।

এক্সট্রা কারিকুলাম অ্যাক্টিভিটির দক্ষতা প্রমানে সার্টিফিকেটের প্রয়োজন আছে কি?

এক্সট্রা কারিকুলার অ্যাক্টিভিটির দক্ষতা প্রমানে ‘সার্টিফিকেট প্রয়োজন’ এটি একটি মিথ মাত্র। এমন অনেক এক্সট্রা কারিকুলার অ্যাক্টিভিটি রয়েছে যার জন্য কোন সার্টিফিকেট পাওয়া যায় না।

যেমনঃ তুমি হয়তো কিছু পথ শিশুকে পড়াও, এই কাজের জন্য কোন সার্টিফিকেট পাওয়ার সুযোগ নেই। যদিও এটি খুবি ইম্পরট্যান্ট একটি এক্সট্রা কারিকুলার অ্যাক্টিভিটি।

সুতরাং, সার্টিফিকেট না থাকলেও তুমি যে কোন ধরনের এক্সট্রা কারিকুলার অ্যাক্টিভিটি উল্লেখ করতে পারো।

একজন স্কুল/ কলেজ স্টুডেন্ট হিসেবে আমার কি কি এক্সট্রা কারিকুলাম অ্যাক্টিভিটিতে অংশ নেয়া উচিত? 

একজন স্কুল/ কলেজ স্টুডেন্ট হিসেবে তুমি যে কোন  এক্সট্রা কারিকুলাম অ্যাক্টিভিটিতে অংশ নিতে পারো। এগুলোর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে উৎসব আয়োজন, খেলাধুলা, গানবাজনা, বিতর্ক প্রতিযোগিতা, নাটক, এবং আলোচনা। এছাড়াও, গল্প প্রতিযোগিতা, প্রবন্ধ প্রতিযোগিতা, আবৃত্তি প্রতিযোগিতা, স্কুল ম্যাগাজিন প্রকাশ, ভাস্কর্য তৈরী, অ্যালবাম তৈরী, ফটোগ্রাফি ইত্যাদি উল্লেখযোগ্য এক্সট্রা কারিকুলাম অ্যাক্টিভিটি।

তোমার যদি কোন বিশেষ বিষয়ে ভালো লাগা থাকে তবে ঐ বিষয় সম্পর্কিত অ্যাক্টিভিটিতে অংশ নিতে পারো। যেমন- তোমার যদি ম্যাথ বা ভালো লাগে এবং তুমি ম্যাথ বা ফিজিক্স এর মতো বিষয়ে ভর্তি হতে চাও তবে তুমি ম্যাথ / ফিজিক্স অলিম্পিয়াডে অংশ নিতে পারো। যা তোমার কাঙ্ক্ষিত সাবজেক্টে তোমাকে ভর্তি হতে সাহয়তা করবে।

সর্বোপরি, বলা যায় ভালো ফলাফলের সাথে তোমার যদি এক্সট্রা কারিকুলাম অ্যাক্টিভিটি ভালো থাকে তবে তোমাকে ভর্তি কমিটি সাধারণ ৮/১০ টি স্টুডেন্ট থেকে আলাদা ভাবে বিচার করবে। যা তোমার বিদেশে উচ্চশিক্ষার স্বপ্নকে হয়তো সত্যিতে রুপ দিবে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *