আন্ডারগ্রেড লেভেলে উচ্চশিক্ষা অর্জনের লক্ষ্যে দেশের বাইরে পড়তে যেতে চায় এমন শিক্ষার্থীদের SAT 1 (এসএটি) পরীক্ষার রিডিং, রাইটিং ও ল্যাঙ্গুয়েজ এবং ম্যাথ সেকশনে অংশগ্রহণ করতে হয়। এসএটি পরীক্ষার ইংলিশ ল্যাঙ্গুয়েজে হয়ে থাকে এবং রিডিং সেকশনে বড় বড় প্যাসেজ পড়তে হয়। এই জন্য অনেক স্টুডেন্ট এই সেকশন নিয়ে ভয়ে থাকে।

“জানার কোনো শেষ নাই,জানার চেষ্টা বৃথা তাই”

  -সত্যজিৎ রায়ের “হীরক রাজার দেশে” মুভির জনপ্রিয় উক্তি

কোন কিছু না জানা এবং না করার জন্য এক অসাধারণ যুক্তি! তবে ভুলে চলবে না যে অসাধারণ যুক্তি হলেই তা সব সময় ভ্যালিড নাও হতে পারে।

যে কোন কিছুতে ভালো করতে হলে আমাদের জানতে হবে। জানার শেষ না থাকলেও জানার চেষ্টা করতে হবে। এই চেষ্টাই আমাদের রিডিং স্কিল বা পড়ার দক্ষতা বাড়ানোর প্রথম শর্ত।

এখনও হয়তো সব স্টুডেন্টের মনে একটি প্রশ্ন!

আমি কি ভাবে এসএটি (SAT) রিডিং সেকশনে ভালো করতে পারি ?

খুব ছোট করে উত্তর দিলে বলতে হয় “পড়”।

আর যদি একটু বিস্তারিত বলি তাহলে বলতে হয়, সঠিক “ম্যাটারিয়েলস পড়”।

আমাদের রিডিং ধরণকে মোটামটি ২ ভাগে ভাগ করা যায়। যেমন:

১। আনন্দ বা উপভোগের জন্য পড়া

২। কোন উদ্দেশ্যে পড়া

গল্প,উপন্যাস,কবিতা ইত্যাদি আমরা আনন্দ বা উপভোগের জন্য পড়ে থাকি। আবার, আমাদের নানা প্রয়োজনীয় কাজের জন্যও পড়াশোনা করতে হয়।

এসএটি রিডিং সেকশনে ভালো করা তোমাদের উদ্দেশ্য। আর, উদ্দেশ্য সফল করতে তোমাদের জন্য একমাত্র উপায় সঠিক ম্যাটারিয়েলস “পড়া” ।

তবে, তোমাদের বলা হয়নি যে বড় বড় নিরস SAT passage পড়তে হবে। আর বললেও কি কেউ শুনবে ?

তার চেয়ে বরং সংবাদপত্র এবং ম্যাগাজিন থেকে আর্টিকেল পড়, এমন আর্টিকেল যা তোমাদের ভালো রাইটিং সম্পর্কে ধারণা দেয়ার পাশপাশি তোমার চিন্তার উদ্দীপক ( thought-provoking) হিসাবে কাজ করবে। নির্দিষ্ট করে যদি বলা হয়, তবে তুমি New York Times, The Washington Post অথবা The Wall Street Journal (USA Today) থেকে আর্টিকেল পড়তে পার।

The New Yorker, The Atlantic এর মতো ম্যাগাজিন হতে পারে আর্টিকেল পড়ার জন্য তোমার প্রথম পছন্দ।

এই সব সোর্স থেকে আর্টিকেল পড়লে তোমরা অজানা অনেক বিষিয় থেকে জ্ঞান লাভ করতে পারবে। পরীক্ষার প্রশ্নপত্রে আমরা অজানা অনেক কিছু পেয়ে থাকি। তোমরা যখন সঠিক ম্যাটারিয়েলস পড়বে তখন ব্রেইন স্টর্মিং সুযোগ পাবে।

মোট কথা এসএটি (SAT) রিডিং সেকশনে ভালো করার উপায় হলো রিডিং স্কিল বা পড়ার দক্ষতা বাড়ানো। এর জন্য তোমাদের রিডিংটাকে একটি হ্যাবিটে রুপ দিতে হবে।

রিডিংটাকে একটি হ্যাবিটে রুপ দেয়ার পাশাপাশি কার্যকরী কিছু স্ট্রাটিজি জানা থাকাটা জরুরী।

স্ট্রাটিজি  ১  : প্যাসেজগুলো যতোটা সম্ভব দ্রুত পড়ে যাওয়া।

এসএটি (SAT) এভিডেন্স বেজড রিডিং প্যাসেজ নির্ভর। মোট ৪ টি প্যাসেজ থাকবে। রিডিং সেকশনের প্যাসেজগুলো সাধারণত প্রসিদ্ধ ইংরেজি উপন্যাস, গল্প, ম্যাগাজিন, কোন ডাটা টেবিল থেকে নেয়া হয়।

প্রতিটি প্যাসেজের জন্য গড়ে সময় পাওয়া যায় মাত্র ১৫-২০ মিনিট করে। এর মধ্যে পুরো প্যাসেজটি পড়ে উত্তর করতে যাওয়াটা বোকামি হবে। তাই পুরো প্যাসেজের একটি ওভারভিউ নিতে খুব দ্রুত চোখ বুলিয়ে যেতে হবে। এই সময় আলাদা একটা নোটে লিখে রাখাটাই বেশি কার্যকর।

স্ট্রাটিজি  ২  : প্রশ্ন পড়ে নিয়ে পরে প্যাসেজে উত্তরগুলো খোঁজা।

পুরো প্যাসেজটি পড়ে তুমি যদি উত্তর খুঁজতে যাও তবে শেষে গিয়ে হাতে সময় পাওয়া যায় না। উদ্দেশ্যহীন ভাবে প্যাসেজ না পড়ে বরং প্রথম প্রশ্নগুলো ভালো ভাবে পড়ে তারপর প্যাসেজে গিয়ে উত্তরগুলো খুঁজে বের করা উচিত। তাতে নির্দিষ্ট উত্তরের জন্য প্যাসেজটি পড়া হয় এবং তা মূল্যবান সময় বাঁচিয়ে দিতে পারে।

স্ট্রাটিজি ৩: একটি প্রশ্নে অনেক বেশি সময় না দেয়া।

অনেকেই একটি প্রশ্নের উত্তর খুঁজে না পাওয়া পর্যন্ত সেটির উত্তর খুঁজতেই থাকেন। ফলে অতিরিক্ত সময় ব্যয় হয়। এমন পরিস্থিতে প্রশ্নটি স্কিপ করে যাওয়াই ভাল। যাতে পরে সময় পেলে তার উত্তর করা যায়। অনেক সময় দেখা যায় একটি প্রশ্নে অতিরিক্ত সময় ব্যয় করার ফলে যে প্রশ্নের উত্তর আমরা জানি, সেই প্রশ্নের উত্তরটিও আমরা সময়ের অভাবে করতে পারি নি।

স্ট্রাটিজি ৪: ডাটা এবং ইন্সট্রাকশনগুলো ভাল ভাবে খেয়াল করতে হবে।

আমরা প্রায় দেখি স্টুডেন্টরা ডাটা এবং ইন্সট্রাকশনগুলো ভাল ভাবে খেয়াল না করাতে অনেক সহজ প্রশ্ন ভুল করে । এই সমস্যা সমাধানে তোমাদের প্রশ্নের সব ডাটা এবং ইন্সট্রাকশনগুলো ভালো ভাবে লক্ষ্য করতে হবে।

স্ট্রাটিজি ৫: প্যাসেজর লাইন  নাম্বার এবং আন্ডারলাইন অংশ লক্ষ্য করতে হবে

এসএটি (SAT) পরীক্ষার প্যাসেজে লাইন নাম্বার দিয়ে মার্ক করা থাকে এবং লাইন নাম্বার ধরে প্রশ্ন করা হয়। এছাড়াও প্যাসেজের বিভিন্ন অংশ আন্ডারলাইন করা থাকে। তাই, লাইন নাম্বার এবং আন্ডারলাইন অংশ লক্ষ্য করতে হবে। এতে করে তোমরা অল্প সময়ে মধ্যে এসএটি (SAT) পরীক্ষার প্যাসেজে নির্ভর প্রশ্ন সমূহের উত্তর করতে পারবে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *